নবগঠিত কমিটির শুভেচ্ছা বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

বাংলাদেশ লেখক-সাংবাদিক অ্যাসোসিয়েশন’কাতারের আয়োজনে এক শুভেচ্ছা বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কাতারের রাজধানী দোহার বাণিজ্যিক এলাকা নাজমার হক রেস্টুরেন্ট মিলনায়তনে এই সভার আয়োজন করা হয়।

কাতারে বাংলাদেশী লেখক ও সাংবাদিকদের মূল ধারার সংগঠন ‘বাংলাদেশ লেখক-সাংবাদিক অ্যাসোসিয়েশন’ কাতার এর নবগঠিত পূর্ণাঙ্গ কমিটির সদস্যদের মাঝে পরিচিতি ও শুভেচ্ছা বিনিময়ের জন্য এই সভার আয়োজন করা হয়।

সভায় সংগঠনের সভাপতি অধ্যাপক আমিনুল হকের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক শাহবুদ্দিন শামীমের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক জাকারীয়া আহাম্মেদ খালিদ, সহ সভাপতি শাহ আলম খান, দপ্তর সম্পাদক শরিফুল ইসলাম। সদস্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, ইমরান হাসান, নুরে আলম জাহাঙ্গীর, মোশারফ হোসেন জনি, মো: সোহেল আহমেদ, শেখ ফারুক প্রমুখ।

সংগঠনের সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন, ‘বাংলাদেশ লেখক-সাংবাদিক অ্যাসোসিয়েশন’ কাতার’ কাতারের একটা ব্যান্ড সংগঠন। সংগঠনের শুরু থেকেই এই সংগঠন কাতারে বাংলাদেশী কমিউনিটির উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। কমিউনিটির উন্নয়নে বিভিন্ন গণসচেতনতামূলক কর্মশালা, কমিউনিটির নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভা, সাহিত্য সাময়িকী প্রকাশ থেকে শুরু করে বিভিন্ন কর্মকান্ডের মাধ্যমে ইতিমধ্যে এই সংগঠন কাতার প্রবাসী বাংলাদেশীদের অন্তরে স্থান করে নিয়েছে। সংগঠনের বিলুপ্ত হওয়া কমিটির গুটি কয়েক পথভ্রষ্ট সদস্যের কর্মকান্ডে সংগঠনের সুনাম কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে ইতিমধ্যে বাংলাদেশী কমিউনিটিতে তাদের মুখোশ উন্মোচিত হয়ে পড়েছে এবং সচেতন বাংলাদেশীরা তাদের ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যানও করেছে।

সংগঠনের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক শাহবুদ্দিন শামিম সংগঠনকে আরও শক্তিশালী করার ব্যাপারে তাগিদ দিয়ে বলেন, দুষ্ট গরুর চেয়ে শূন্য গোয়াল অনেক ভালো। সংগঠনের শৃঙ্খলা ভঙ্গের ব্যাপারে আমরা আরও কঠোর অবস্থানে যাবো। কোন সদস্যের কারনে সংগঠন ও কমিউনিটির সামান্যতম ক্ষতি হোক সেটা আমরা চাইনা। ভালো মন্দ মিলিয়েই আমাদের সমাজ। মন্দকে পরিহার করে ভালোকে সঙ্গী করে বাংলাদেশ কমিউনিটির উন্নয়নে আমাদের কাজ করে যেতে হবে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, সহ সভাপতি শাহ আলম খান, সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক জাকারীয়া আহাম্মেদ খালিদ, দপ্তর সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, সদস্য: ইমরান হাসান, নুরে আলম জাহাঙ্গীর, মোশারফ হোসেন জনি, মো: সোহেল আহমেদ।