কাতারে কার্যকর হতে যাচ্ছে নতুন আইন

ত্রিশাল প্রতিদিন ডেস্ক:: কাতারে নতুন এক আইন কার্যকর হতে যাচ্ছে। এই আইনটি কাতারি ও বিদেশি সবার জন্য সমানভাবে প্রযোজ্য ও বাধ্যতামূলক করা হবে বলে জানা গিয়েছে। এই আইনের আওতায় সরকারিভাবে প্রত্যেক প্রতিষ্ঠান ও ব্যাক্তিকে নিজেদের সব তথ্য (নিজের নাম,ঠিকানাসহ প্রয়োজনীয় সব তথ্য) নিবন্ধন করাতে হবে। কেউ যদি আইনটি না মানেন অথবা ভুল তথ্য নিবন্ধন করে তবে তাকে ১০ হাজার রিয়াল জরিমানা করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

এক অনুষ্ঠানে কাতার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আইন শাখার প্রধান ব্রিগেডিয়ার সালেম আল মুরাইখি আল রায়য়ান টিভিকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে এই তথ্য জানান। আধুনিক কাতার গড়ার লক্ষ্যে সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এই আইন বাস্তবায়নের বিকল্প নেই বলে মনে করছেন কাতারের নিরাপত্তা কর্মকর্তারা।

নতুন এই আইনের নাম দেয়া হয়েছে ‘জাতীয় ঠিকানা আইন’। কাতার পুলিশের ঠিকানা শাখার প্রধান লেফ. কর্নেল ড. যায়েদ এই কার্যক্রমের তথ্য বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে দিয়েছেন।

তিনি বলেন, কয়েকদিনের মধ্যে এই আইনের অধীনে কাতারে থাকা সবাইকে নিজের নাম ও বিস্তারিত ঠিকানা সরকারিভাবে তথ্যভান্ডারে নিবন্ধন করা শুরু হবে। এ জন্য অনলাইনের পাশাপাশি বিভিন্ন জায়গায় বিশেষ অফিস ও বুথ স্থাপন করার কাজ ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে।

ঘোষণা দেওয়ার পর থেকে প্রত্যেক বিদেশি ও কাতারি নাগরিককে অনলাইনে অথবা নির্ধারিত জায়গায় হাজির হয়ে নিজের নাম, ঠিকানা, ফোন নাম্বার, মোবাইল নাম্বার, ইমেইল, কর্মস্থল প্রতিষ্ঠানের ঠিকানা, নিজ দেশে স্থায়ী ঠিকানা নিবন্ধন করতে হবে। মাতরাশ টু অ্যাপ ব্যবহার করেও এসব তথ্য নিবন্ধন করা যাবে।

ঘোষণা দেওয়ার পর থেকে ছয় মাস পর্যন্ত সময় দেওয়া হবে। যারা এই ছয় মাসে নিজের নাম-ঠিকানা নিবন্ধন করবেন না তারা জাতীয় ঠিকানা আইনের আর্টিকেল ৬ এ দোষী সাব্যস্ত হবেন এবং তাদের বিরুদ্ধে জরিমানামূলক শাস্তির ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কাতারি বা বিদেশি- যেই হোন না কেন, আইন অমান্যকারীকে ১০ হাজার রিয়াল জরিমানা করা হবে।যারা নিবন্ধন করবেন না, তারা জরিমানার পাশাপাশি বেশকিছু সেবা থেকে বঞ্চিত হবেন।